Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

ইউরোপে আম রপ্তানী শুরু

রাজশাহী থেকে আম রপ্তানী শুরু হয়েছে। রোববার উদ্বোধনী দিনে সাড়ে তিন হাজার কেজি আম ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তবে কোম্পানী দেরিতে আম নেওয়ায় এবং অতিরিক্ত পরিপক্ক হওয়ায় ব্যাগেই পেকেছে অনেক আম। আর এসব আম রপ্তানী না হওয়ায় স্থানীয়রা চাষিরা লোকসানের মুখে পড়েছে।

জানা গেছে, স্থানীয় বাগান থেকে প্রথমে এসব আম ঢাকায় যাবে। সেখান থেকে ইউরোপের বিভিন্ন রাস্ট্রে আল-আমিন হোলসেল্স লিমিটেড সরবরাহ নিবে। আম রপ্তানীর লক্ষমাত্রা ছিল প্রায় দুই হাজার টন। কিন্তু আমের অর্ডার দেরীতে হওয়ায় এমনিতেই একশো’ টন সরবরাহের সময় পার হয়েছে।

নগরীর জিন্নানগরে সরোজমিন গিয়ে দেখা যায়, হিমসাগর (খিড়সাপাত) আম প্যাকেটজাত করা হচ্ছে। প্রতিটি প্যাকেটে দুই কেজি আম সংরক্ষণ করা হচ্ছে। সেখানে দেখা হয় রাজশাহী এগ্রো ফুড প্রোডিউসার সোসাইটির সভাপতি আনোয়ার হোসেনের সাথে। তিনি বলেন, বিভিন্ন এলাকার ১০টি বাগান থেকে আম সংগ্রহ করা হচ্ছে। মে মাসের ২৮ তারিখ থেকে এই আগগুলো নেয়ার কথা। দেরিতে রেপ্তানী হওয়ায় অনেক আম প্যাকেটেই পাক ধরেছে। আবার অতিরিক্ত পরিপক্ক হওয়ায় বোটা থেকে ঝরে প্যাকেটেই রয়ে গেছে। এমন শতকরা প্রায় ৩০টি আম রপ্তানীর বাইরে থাকছে। এতে কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তিনি আরো জানান, গত বছর প্রতি কেজি আমের দাম ৮৫ টাকা দিলেও এবারে দিচ্ছেন ৮০ টাকা। এখানেও চাষিকেও লোকসান গুণতে হচ্ছে।

সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান খান বলেন, রাজশাহীতে প্রায় একশো জন চাষি বিদেশে রপ্তানীর যোগ্য আমচাষ করেছেন। প্রায় ১০ লাখ আমে ব্যাগিং করা হয়েছে। তবে প্রতিকুল পরিবেশ, এক্সপোর্ট-ইম্পোর্টের জটিলতার কারণে কিছুটা হলেও লোকসান হবে। তিনি আরো বলেন, ব্যাগিং পদ্ধতির আম বিদেশে না রপ্তানী হলেও দেশীয় বাজারে ভাল দামেই বিক্রি হবে।

রাজশাহীতে এবারে ফ্রুট ব্যাগিং পদ্ধতিতে আমচাষ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। উৎপাদিত আমের গুণগত মান ভালো হওয়ায় এসব আম বিদেশে রপ্তানী হচ্ছে। আমের মান ও দাম ভাল পাওয়ায় ক্রমেই উৎসাহী হয়ে উঠছেন কৃষকরা। ফলে এই ফ্রুট ব্যাগিং পদ্ধতির মাধ্যমে আম চাষের প্রসার ঘটেছে।

কৃষকরা লাভবান হওয়ায় আশায়, বালাইমুক্ত নিরাপদ আম উৎপাদন করতে বাগানে ব্যবহৃত হচ্ছে ফ্রুট ব্যাগিং পদ্ধতি। সুস্বাদু ও গুণগত মান ভালো হওয়ায় দেশের গণ্ডি পেরিয়ে এখানকার আম রপ্তানি হচ্ছে চীন ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
বাজারে গত মাসের মাঝামাঝি সময় থেকেই আম আম রব। ক্রেতা যে আমেই হাত দিক না কেন দোকানি বলবে হিমসাগর নয়তো রাজশাহীর আম। ক্রেতা সতর্ক না বলে রঙে রূপে একই হওয়ায় দিব্যি গুটি আম চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে হিমসাগরের নামে। অনেকসময় খুচরা বিক্রেতা নিজেই জানে না তিনি কোন আম বিক্রি করছেন। ...
ফলের রাজা আম। আর আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ। দেশের সর্ববৃহত্তর অর্থনৈতিক ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যলয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা। এ জেলার প্রধান অর্থকরী ফসল আম। বর্তমানে জেলা সবখানে চলছে বাগান পরিচর্যা ও বেচা-কেনা। বর্তমানে জেলার ২৪ হাজার ৪৭০ হেক্টর আম বাগানে ৯০ ভাগ মুকুল এসেছে। ...
আমাদের দেশে উৎপাদিত মোট আমের ২০ থেকে ৩০ শতাংশ সংগ্রহোত্তর পর্যায়ে নষ্ট হয়। প্রধানত বোঁটা পচা ও অ্যানথ্রাকনোজ রোগের কারণে আম নষ্ট হয়। আম সংগ্রহকালীন ভাঙা বা কাটা বোঁটা থেকে কষ বেরিয়ে ফলত্বকে দৃষ্টিকটু দাগ পড়ে । ফলত্বকে নানা রকম রোগজীবাণুও লেগে থাকতে পারে এবং লেগে থাকা কষ ...
বাংলাদেশে উৎপাদিত ফল ও সবজির রপ্তানির সম্ভাবনা অনেক। তবে সম্ভাবনার তুলতায় সফলতা যে খুব যে বেশি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। রপ্তানি সংশ্লিষ্ঠ ব্যাক্তিবর্গ অনিয়মতান্ত্রিকভাবে বিভিন্নভাবে তাদের প্রচেষ্ঠা অব্যহত রেখেছেন। কিন্তু এদের সুনির্দিষ্ট কোন কর্ম পরিকল্পনা নেই বললেই চলে। ...
মৌসুমি ফল দিয়ে কর্তা ব্যক্তিদের খুশি করে স্বার্থ উদ্ধারের পদ্ধতি অনেক দিনের। বর্তমানে এই খুশি বিষয়টি আদায় করতে নগদ অর্থ খরচ করতে হলেও ফল থেরাপি ধরে রেখেছে অনেকেই। এর একটি হল মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের জন্য নিয়মিত ...
দেশের বাজারে নতুন হ্যান্ডসেট নিয়ে আসলো ম্যাংগো। এটি দেশীয় প্রতিষ্ঠান। ম্যাংগো ১১ টি মডেলের হ্যান্ডসেট নিয়ে এসেছে। এগুলোর মধ্যে ৫টি স্মার্টফোন এবং ৬ টি ফিচার ফোন। এর একটি মডেলের নাম ফজলি। এটি ফিচার ফোন। আজ রাজধানীর একটি হোটেলে ম্যাংগো অনুষ্ঠানিকভাবে ফোনগুলো অবমুক্ত করে। ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২