Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

রাজশাহীর বাজারে গোপালভোগ আম

রাজশাহীর বাজারে হরেক সুমিষ্ট রসালো ফলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে গোপালভোগ আম। দাম বেশী হলেও আগাম জাতের আম শোভা পাচ্ছে মৌসুমী ব্যবসায়ীর ফলের পাশরায়। রাজশাহীতে এবার আম পাড়ার তেমন সময়সীমা না থাকায় এরইমধ্যে গুটি ও গোপালভোগ উঠেছে বাজারে। আর এক সপ্তাহ ধরে বিক্রি শুরু হয়েছে রসালো ফল লিচুর। ব্যাপক হারে এখনো আমের সমারোহ না ঘটলেও ব্যবসায়ীরা অল্প পরিসরে বিক্রি শুরু করেছেন পাকা গোপালভোগ। তারা বলছেন আর এক সপ্তাহের মধ্যে আম সমৃদ্ধ রাজশাহীর বাজারে কারবার শুরু হবে হরেক স্বাদের আম বাণিজ্য।

 

বুধবার রাজশাহী নগরীর বিভিন্ন বাজারে দেখা মেলেছে গুটি ও পোপালভোগ জাতের আম। এসব আমের মধ্যে গুটি আমের সংখ্যাই বেশি। তবে অল্প পরিমাণে সুমিষ্টি গোপাল ভোগের দেখা পাওয়া যাচ্ছে। ইতোমধ্যে রাজশাহীর আশেপাশের বাজারগুলোতে ঢাকা, চট্টগ্রাম এলাকা থেকে শুরু করে বিভিন্ন এলাকার আম ব্যবসায়ীরা ভিড় জমাতে শুরু করেছেন।
শুধু আম ও লিচুই নয়, বাজারে এখন হরেক ফলের সমারোহ। জামরুল, সফেদা, তরমুজ, বাঙ্গি, লালিম, বেল সবধরনের ফল এখন শোভা পাচ্ছে ফলের দোকানগুলোয়। আম লিচুসহ মধুমাসের রসে ভরা জ্যৈষ্ঠের হরেক ফল এখন বাজারে মিললেও শুরুকেই দাম আকাশ ছোঁয়া। দেশী গুটি জাতের আম হলেও বাজারে নতুন আসায় দাম বেশ চড়া। রাজশাহী নগরীর সাহেব বাজারে উঠা প্রথম গোপালভোগ বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৩০ টাকা কেজি দরে। তবে আগামী সপ্তাহে পুরোপুরি আম উঠলে দাম কিছুটা কমতে পারে বলে জানান ব্যবসায়ীরা। এদিকে এখনো বড় আকারের বোম্বাই জাতের লিচু না উঠলেও দেশি লিচুর সমারোহে বাজার সরগরম। রাজশাহীর বাজারে এখন প্রতি একশ লিচু বিক্রি হচ্ছে ২৮০ থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত। গতকার বড় আমের মোকাম পুঠিয়ার বানেম্বর বাজারের দেখা মিলেছে আমের।

এদিকে রাজশাহীর পথের পাশেই সারি সারি আমগাছে ক্রমেই পাক ধরছে আমে। রাজশাহীর সুস্বাদু মিষ্টি আমের কথা উঠলেই প্রথমে আসে বাঘা ও চারঘাটের নাম। মনিগ্রামের পুরনো আমচাষি ও ব্যবসায়ী জিল্লুর রহমান জানান, এ বছর ২০ বিঘা জমিতে আমের বাগান রয়েছে তার। এছাড়া গ্রামের বিভিন্ন স্থানে আরো ১৭শ’ আম গাছ কিনে রেখেছেন। তিনি বলেন এবার কয়েক দফা ঝড়ে আমের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

চারঘাটের আম চাষিরা জানান, বাজারে পুরোদমে আম উঠতে এখনো সপ্তাহ খানেক লাগবে। পাকা আম পেতে আরো এক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে। তবে অনেকে গাছ থেকে আগাম জাতের কিছু আম এরইমধ্যে পেড়ে খুচরা বাজারে বিক্রি করছেন। বিশেষ করে গুটি ও গোপালভোগ জাতের আম স্বল্প পরিসরে উঠতে শুরু করেছে।

 

রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা জানান, এ বছর মার্চ মাসের শেষে এবং এপ্রিলের শুরুতে এই অঞ্চলে হালকা বৃষ্টিপাত হয়েছে। এতে আমবাগানে সেচের কাজটি প্রাকৃতিকভাবেই হয়ে গেছে। বাড়তি সেচের প্রয়োজন পড়েনি। আমের পরিস্থিতি খুব ভালো ছিলো। তবে মে মাসেই কয়েক দফা ঝড়ে আমের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এ ক্ষতি পুষিয়ে উঠা কষ্টসাধ্য। আমের কাঙ্খিত দাম না পেলে চাষিরা সুবিধা করতে পারবেন না এবার। এ কারনে বাজারে এবার আমের দাম বৃদ্ধি পেতে পারে।

 

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিখ্যাত ‘খিরসাপাত’ জাতের আম জিআই’ (ভৌগোলিক নির্দেশক) পণ্য হিসেবে নিবন্ধিত হতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে গেজেট জারি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। নিবন্ধন পেলে সুস্বাদু জাতের এই আম ‘চাঁপাইনবাবগঞ্জের খিরসাপাত আম’ নামে বাংলাদেশসহ বিশ্ব বাজারে পরিচিতি লাভ করবে।  এই আমের ...
আম ও আমজাত পণ্য রপ্তানী বিয়য়ে সেমিনার হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বারের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় রপ্তানীর প্রশিক্ষন কর্মসুচীর আওতায় শনিবার সকালে দিনব্যাপী সেমিনারের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ জাহিদুল ইসলাম। আলোচনার মাধ্যমে আম রপ্তানী ও বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের ...
ঝিনাইদহে দিন দিন বাড়ছে আম চাষের আবাদ। স্বাস্থ্য ঝুঁকিবিহীন জৈব আর ব্যাগিং পদ্ধতিতে আম চাষ করছে এই এলাকার আমচাষিরা। এ বছর ফলন ভালো হওয়ার আশায় খুশি তারা। জেলা থেকে বিদেশে রপ্তানী আর আম সংরক্ষণের দাবি চাষিদের। জানা যায়, ২০১১ সালে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলায় আমের আবাদি জমির ...
রাজধানীর মালিবাগের আবদুস সালাম। বয়স ৭২ বছর। তার চার তলার বাড়িতে রয়েছে একটি দুর্লভ ‘ছাদবাগান’। শখের বসে এ বাগান করেছেন। বছরের সব ঋতুতেই পাওয়া যায় নানা ধরনের ফল। এখনো পাকা আম ঝুলে আছে ওই ছাদবাগানে। শুধু আম নয়, ৫ কাঠা ওই বাগানজুড়ে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ফুল, ফলসহ অন্তত ১০০ ...
ফলের রাজা আম এ কথাটি যথাযথই বাস্তব। ফলের মধ্যে এক আমেরই আছে বাহারি জাত ও বিভিন্ন স্বাদ। মুখরোচক ফলের মধ্যে অামের তুলনা নেই। মৌসুমি ফল হলেও, এর স্থায়িত্ব বছরের প্রায় তিন থেকে চারমাস। এছাড়া ফ্রিজিং করে রাখাও যায়। স্বাদ নষ্ট হয় না। আমের ফলন ভালো হয় রাজশাহী অঞ্চলে। ...
নব্য জেএমবির বিভিন্ন সদস্যকে গ্রেপ্তার এবং সর্বশেষ সংগঠনের প্রধান আব্দুর রহমানের কাছ থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র সংগ্রহ করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। প্রায় ১৯টির মতো সাংগঠনিক চিঠিও উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে ৯টি চিঠি পাঠিয়েছেন নিহত আব্দুর রহমান ওরফে ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২