Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

দিনাজপুরে আম বাগানেই বিষ!

ধানের জেলা দিনাজপুরে বানিজ্যিকভাবে আম চাষ শুরু হওয়ায় ব্যবসায়ীরা অধিক লাভের আশায় অসৎ পথে ঝুকে পড়েছেন। আম ব্যবসায়ী ও বাগান মালিকরা আমের ফলন বৃদ্ধিতে বাগানেতেই ব্যবহার করছেন বিভিন্ন কীটনাশক.ফরমালিনসহ প্রাণঘাতি নানান বিষাক্ত পদার্থ। আর এসব বিষাক্ত পদার্থ মিশ্রিত আম খেয়ে মানব দেনে নানান জটিল রোগ সৃষ্টি সহ মৃত্যুর মুখে ঝুকে পড়ছে মানুষ। চিকিৎসক বিশেষজ্ঞরা ছাড়াও এ কথা স্বীকার করেছেন জেলা প্রশাসন।

 

গাছে গাছে থোকা থোকা ঝুলছে আম। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় দিনাজপুরে চলতি মৌসুমে আমের বাম্পার ফলন হয়েছে। ধানের জেলা দিনাজপুরে বানিজ্যিকভাবে আম চাষ হচ্ছে। এ বছর জেলায় ২ হাজার ১৯৬ হেক্টর বাগান ও ৯৪৪ হেক্টর বসতবাড়ী মিলে মোট ৩ হাজার ৩ হাজার ১৪০ হেক্টর জমিতে আম চাষ হয়েছে।

 

দিনাজপুরে প্রায় ২০/২৫ প্রজাতির আমচাষ হয়। এর মধ্যে ফজলি, গোপালভোগ,মিশ্রিভোগ,সূর্যাপুরী, ল্যাংড়া, আমরুপালি, আশ্বিনা, কালাপাহাড়ী, গুটি, মিষ্টিমধু, মধুচুষি, খিরশাপাতি উল্লেখযোগ্য। সদর, বিরল, কাহারোল, চিরিরবন্দর  বোচাগঞ্জ, বীরগঞ্জ,পার্বতীপুর এলাকার বাগানগুলোতে এবার আম হয়েছে বেশী।

 

তবে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদাল আম বাগানে অভিযান চালিয়ে এর গোমড় ফাস হয়ে পড়েছে। আম ব্যবসায়ী ও বাগান মালিকরা অধিক লাভের আশায় অসৎ পথে ঝুকে পড়েছেন। আমের ফলন বৃদ্ধিতে বাগানেতেই ব্যবহার করছেন বিভিন্ন কীটনাশক.ফরমালিনসহ প্রাণঘাতি নানান বিষাক্ত পদার্থ। বাগান মালিকরা বাগানে অন্যান্য ওষুধের চেয়ে পোকামাকড় দমনে বিষাক্ত কীটনাশক বেশী করে প্রয়োগ করে থাকেন। বাজারে এসব দেখতে সুন্দর আম দেখে ক্রেতারা আকৃষ্ট হচ্ছেন। কিনছেন। কিন্তু আমে কি আছে তারা জানছেন না।

 

ফল দোকানগুলোতে ফরমালিন ও বিষাক্ত পদার্থ মিশ্রিত মেশানো সুন্দর চেহারার আম জায়গা দখল করে নিয়েছে। তবে আমে ফরমালিন কিংবা বিষাক্ত পদার্থ মিশ্রিত আছে কি না তা বলতে নারাজ ব্যবসায়ীরা।

 

আর এসব ফরমালিন  যুক্ত বা বিষাক্ত পদার্থ মিশ্রিত আম খেয়ে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েছে জনজীবন।মানব দেনে নানান জটিল রোগ সৃষ্টি সহ মৃত্যুর মুখে ঝুকে পড়ছে মানুষ।এমটাই জানালেন,দিনাজপুর জেলার ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা.মারতুরা বেগম।

 

ফরমালিন মেশানোর বা বিষাক্ত পদার্থ মিশ্রিত আম বাজারজাত করণে প্রতিরোধ গড়তে কঠোর হস্তক্ষেপ দেয়ার কথা জানিয়েনে দিনাজপুর জেলা প্রশানক আহমদ শামীম আল রাজী।

বাগান থেকে বিষ মিশ্রিয় হয়ে বাজারে আসছে এসব আম। আর এসব আম খেয়ে মানব দেহে নানান জটিল রোগসহ মৃত্যুর মুখে ঝুঁকে পড়ছে মানুষ। তাই শুধু লোক দেখানো ভেজাল বিরোধী অভিযান নয়,এসব আমের সাথে বিষ মিশ্রিত অসাধূ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে স্থানীয় প্রশাসন কঠোর হস্তক্ষেপ নিবেন-এমনটাই প্রত্যাশা সাধারণ মানুষের।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিখ্যাত ‘খিরসাপাত’ জাতের আম জিআই’ (ভৌগোলিক নির্দেশক) পণ্য হিসেবে নিবন্ধিত হতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে গেজেট জারি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। নিবন্ধন পেলে সুস্বাদু জাতের এই আম ‘চাঁপাইনবাবগঞ্জের খিরসাপাত আম’ নামে বাংলাদেশসহ বিশ্ব বাজারে পরিচিতি লাভ করবে।  এই আমের ...
ফলের রাজা আম।বাংলাদেশ এবং ভারত এ যে প্রজাতির আম চাষ হয় তার বৈজ্ঞানিক নাম Mangifera indica. এটি Anacardiaceae পরিবার এর সদস্য। তবে পৃথিবীতে প্রায় ৩৫ প্রজাতির আম আছে। আমের বিভিন্ন জাতের মাঝে আমরা মূলত ফজলি, ল্যাংড়া, গোপালভোগ, ক্ষিরসাপাত/হীমসাগর,  আম্রপালি, মল্লিকা,আড়া ...
রাজশাহী ও রংপুরের পর এবার মেহেরপুরেও তৈরি হচ্ছে বিদ্যুৎ বিহীন প্রাকৃতিক হিমাগার। এখানে অল্প খরচে সংরক্ষণ করা যাবে পিঁয়াজ ও আলু। এই হিমাগার সফলভাবে বাস্তবায়ন হলে ভবিষ্যতে আম ও লিচুর সংরক্ষণাগার তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তা। কৃষি বিভাগ বলছে, এই সংরক্ষণাগার ...
আমে ফরমালিন আর কার্বাইডের ব্যবহার নিয়ে দেশে যখন ব্যাপক হইচই হচ্ছে, এর নেতিবাচক প্রচারের অনেক ভোক্তা সুস্বাদু এই মৌসুমি ফল থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। ব্যবসায়ীরাও মাঠে নেমেছেন কম। আমের বাজারে চলছে ব্যাপক মন্দা। এই সময়ে শাহ কৃষি জাদুঘর এবার ফরমালিন-কার্বাইড তো দূরের কথা, কোনো ...
ফলের রাজা আম এ কথাটি যথাযথই বাস্তব। ফলের মধ্যে এক আমেরই আছে বাহারি জাত ও বিভিন্ন স্বাদ। মুখরোচক ফলের মধ্যে অামের তুলনা নেই। মৌসুমি ফল হলেও, এর স্থায়িত্ব বছরের প্রায় তিন থেকে চারমাস। এছাড়া ফ্রিজিং করে রাখাও যায়। স্বাদ নষ্ট হয় না। আমের ফলন ভালো হয় রাজশাহী অঞ্চলে। ...
অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড কাউন্টির ছোট্ট শহর বাউয়েন। ছোট এ শহরের বড় গর্ব একটা আম। আমটি নিয়ে বাউয়েন শহরের মানুষেরও গর্বের শেষ নেই। লোকে তাদের শহরকে চেনে আমের রাজধানী হিসেবে। ৩৩ ফুট লম্বা, সাত টন ওজনের বিশাল এই আমের পাশে দাঁড়িয়ে ছবি তোলার লোকের অভাব হয় না। তবে দিনকয়েক আগে ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২