Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

শখের ছাদবাগানে বারোমাসি আম

রাজধানীর মালিবাগের আবদুস সালাম। বয়স ৭২ বছর। তার চার তলার বাড়িতে রয়েছে একটি দুর্লভ ‘ছাদবাগান’। শখের বসে এ বাগান করেছেন। বছরের সব ঋতুতেই পাওয়া যায় নানা ধরনের ফল। এখনো পাকা আম ঝুলে আছে ওই ছাদবাগানে। শুধু আম নয়, ৫ কাঠা ওই বাগানজুড়ে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ফুল, ফলসহ অন্তত ১০০ প্রকারের গাছগাছালির সমাহার। বাগানে এখনো অন্তত ১৫ ধরনের আম গাছ রয়েছে। কোনোটিতে মুকুল, কোনোটিতে ছোট আম, আবার কোনোটিতে কাঁচাপাকা আম শোভা পাচ্ছে। প্রায় এক যুগ ধরে করা এই শখের বাগানে সব মৌসুমেই আম খায় আবদুস সালামের পরিবার। বাগানে আম্রপালি, মল্লিকা, বেনিসন, হিমসাগর, ল্যাংড়া, কাঁচা মিঠা, কিউজিয়াই, নাম দোখমাই, থাই ভ্যারাইটি, গোপালভোগ, বারোমাসি, লতা বোম্বাই প্রভৃতি আম গাছ লক্ষ্য করা যায়। এর মধ্যে আম্রপালি, থাই ভ্যারাইটি আমের পাশাপাশি বারোমাসি আম গাছেও দেখা মেলে পাকা আম। শখের বাগান প্রসঙ্গে গতকাল অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা আবদুস সালাম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানান, ‘বছরজুড়েই বাগান থেকে আমি আম খাই। এখন তিনটি গাছে পাকা আম ধরেছে। শুধু আম গাছ নয়, আমার শখের বাগানে নানা প্রকার ফুল গাছও রয়েছে। আমি অবসরের পুরো সময়টা ছাদের বাগানে কাটাই। এ কাজে আমার সহধর্মিণী হুসনে আরা সালাম সার্বিক সহযোগিতা করেন। সন্তানের মতোই বাগানকে আমি ভালোবাসি।’ বাগান ঘুরে দেখা গেছে, আম্রপালি আম গাছের কয়েকটিতে মুকুল ধরেছে। আবার কয়েকটিতে কাঁচাপাকা আমও রয়েছে। থাই ভ্যারাইটি গাছেও পাকা আম দেখা যায়। বারোমাসিতেও ধরেছে আম। মুকুলও রয়েছে। কোনো কোনো গাছের মুকুলে মৌমাছিসহ নানা প্রকার পাখপাখালির ঘোরাফেরা। বিভিন্ন প্রকার ডালিয়া ফুল, চন্দ্রমল্লিকাসহ সরিষা ফুলের ঘ্রাণে মাতোয়ারা বাগানসহ পুরো এলাকা। সাবেক এই সরকারি কর্মকর্তা শখের বাগানে পিয়াজ, রসুন, বেগুন, লেবু, গোল আলু, টমেটো, শিম, করলা, আদা, মিষ্টি মরিচ, কামরাঙা মরিচ, গোলমরিচসহ বিভিন্ন প্রকার মরিচ চাষও করেছেন। ডালিম গাছেও ফল ধরেছে। জামরুল গাছেও শোভা পাচ্ছে সবুজ মিষ্টি জামরুল। সৈয়দ পেয়ারাসহ বিদেশি ছোট জাতের পেয়ারাও রয়েছে আবদুস সালামের বাগানে। নানা ধরনের বরই গাছের মধ্যে রয়েছে আপেলকুল, বাউকুল ও থাইকুল। পেঁপে গাছের পাশাপাশি রয়েছে সৌদি আরবের খেজুর গাছও। ঔষধি গাছের মধ্যে রয়েছে আমলকী, অর্জুন, কালোমেঘ, তুলসী, পাথরকুচি, নিম, ফণিমনসা, পিপুল, পান মসল্লা প্রভৃতি। চার জাতের অর্কিডও শোভা পাচ্ছে বাগানে। রয়েছে গোলাপ, টগরসহ দেশি-বিদেশি নানা ফুল। কয়েক প্রকার জামরুলের মধ্যে বাগানে রয়েছে থাইল্যান্ডের লাল জামরুল, স্ট্রবেরি জামরুল, সাদা জামরুল ও সবুজ জামরুল। উন্নতমানের গোলাপজাম, জাম্বুরা, জাম গাছ, পেস্তাবাদাম, কাঠবাদাম, টিপফল ও ডালিম আছে বাগানে। রয়েছে দুধকচু গাছও। বট, পাকুড় ও তালের বনসাইও নজর কাড়ে বাগানে। অনেকেই বাগান সম্পর্কে ধারণা নেন আবদুস সালামের কাছ থেকে। ছাদবাগান তৈরিতে উৎসাহও জোগান তিনি। সাবেক এই সরকারি কর্মকর্তা বলেন, ‘পারিবারিক জীবনের উল্লেখযোগ্য একটি সময় আমি বাগানে কাটাই। গাছকে আমার কাছে বন্ধু বলে মনে হয়। যখন বাগানে যাই, মনে হয় গাছগুলো আমাকে দেখে হাসছে কিংবা ক্ষুধায় কাঁদছে। বাগানে প্রবেশমাত্রই আমার মন ভালো হয়ে যায়।’

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
বাজারে গত মাসের মাঝামাঝি সময় থেকেই আম আম রব। ক্রেতা যে আমেই হাত দিক না কেন দোকানি বলবে হিমসাগর নয়তো রাজশাহীর আম। ক্রেতা সতর্ক না বলে রঙে রূপে একই হওয়ায় দিব্যি গুটি আম চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে হিমসাগরের নামে। অনেকসময় খুচরা বিক্রেতা নিজেই জানে না তিনি কোন আম বিক্রি করছেন। ...
ফলের রাজা আম। আর আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ। দেশের সর্ববৃহত্তর অর্থনৈতিক ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যলয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা। এ জেলার প্রধান অর্থকরী ফসল আম। বর্তমানে জেলা সবখানে চলছে বাগান পরিচর্যা ও বেচা-কেনা। বর্তমানে জেলার ২৪ হাজার ৪৭০ হেক্টর আম বাগানে ৯০ ভাগ মুকুল এসেছে। ...
দেশেই তৈরি হচ্ছে ফ্রুটব্যাগ বাড়ছে চাহিদাদেশেই তৈরি হচ্ছে ফ্রুটব্যাগ বাড়ছে চাহিদা বিষমুক্ত ও ভালো মানের আম উৎপাদনে ফ্রুটব্যাগ পদ্ধতি বেশ কার্যকর। এত দিন আমদানিনির্ভর হলেও দুই বছর ধরে এটি দেশেই তৈরি হচ্ছে। আর এ ব্যাগ তৈরি হচ্ছে আম উৎপাদনের জন্য প্রসিদ্ধ জেলা ...
আমে ফরমালিন আর কার্বাইডের ব্যবহার নিয়ে দেশে যখন ব্যাপক হইচই হচ্ছে, এর নেতিবাচক প্রচারের অনেক ভোক্তা সুস্বাদু এই মৌসুমি ফল থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। ব্যবসায়ীরাও মাঠে নেমেছেন কম। আমের বাজারে চলছে ব্যাপক মন্দা। এই সময়ে শাহ কৃষি জাদুঘর এবার ফরমালিন-কার্বাইড তো দূরের কথা, কোনো ...
ফলের রাজা আম এ কথাটি যথাযথই বাস্তব। ফলের মধ্যে এক আমেরই আছে বাহারি জাত ও বিভিন্ন স্বাদ। মুখরোচক ফলের মধ্যে অামের তুলনা নেই। মৌসুমি ফল হলেও, এর স্থায়িত্ব বছরের প্রায় তিন থেকে চারমাস। এছাড়া ফ্রিজিং করে রাখাও যায়। স্বাদ নষ্ট হয় না। আমের ফলন ভালো হয় রাজশাহী অঞ্চলে। ...
ইসলামপুরের গাইবান্ধা ইউনিয়নের আগুনেরচরে একটি আম গাছের গোড়া থেকে গজিয়ে উঠেছে হাতসদৃশ মসজাতীয় উদ্ভিদ বা ছত্রাক। ওই ছত্রাককে অলৌকিক হাতের উত্থান এবং ওই হাত ভেজানো পানি খেলে যেকোন রোগ ভাল হয় বলে অপপ্রচার করছে স্থানীয় ভ- চক্র। আর ওই ভ-ামির ফাঁদে পা দিয়ে প্রতিদিন প্রতারিত হচ্ছেন ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২