Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

‘ফরমালিন যুক্ত আম বাজারজাত করলে কঠোর ব্যবস্থা’

রাজশাহীর জেলা প্রশাসক এস এম আবদুল কাদের রাজশাহীর আম চাষী ও আম ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, আমে ফরমালিন, কার্বাইড ও অপরিপক্ক আম বাজারজাত করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোমবার পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়ন ভূমি অফিস কার্যালয় মাঠে ফরমালিনমুক্ত, কার্বাইডমুক্ত ও পরিপক্ক আম বাজারজাত নিশ্চিতকরনের লক্ষে স্থানীয় আমচাষী ও আমব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ হুশিয়ারি দেন।

তিনি বলেন, যে সকল আড়ৎদাররা আম চাষীদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করবে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে। যারা আমে ফরমালিন ব্যবহার করে ইতিপূর্বে আম বাজারজাত করেছেন তাদের সতর্ক করে বলেন, সারাদেশ সহ দেশের বাইরে রাজশাহীর আমের ব্যপক চাহিদা রয়েছে ইতিপূর্বে আমে ফরমালিন ব্যবহার করায় এবং অপরিপক্ক আম বাজারজাত করায় ক্রমেই আমের চাহিদা কমে আসছে। ধসনেমে আসছে রাজশাহীর কয়েকটি উপজেলার প্রধান অর্থকরি ফসল আমের বাজারে।

জেলা প্রশাসক আবদুল কাদের আরো বলেন, বানেশ্বর আমহাট রাজশাহী জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় হাট। এখানে জেলার পুঠিয়া, দূর্গাপুর, চারঘাট, বাঘা সহ কয়েকটি উপজেলার আম চাষীরা আম বেচা কেনা করেন। আমচাষীদের যেন কোন ভাবে হয়রানির স্বীকার হতে না হয় এমনকি ওজনে কম বা বেশী নিলে, ব্যবসায়ীদের কাছে কেও চাঁদা চাইলে আম পরিবহনে সড়কে কোন সংস্থার দ্বারা কেউ হয়রানি হলে সরাসরি তাদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেয়ায় আশ্বাষ দেন তিনি।

তিনি ব্যবসায়ীদের সর্বচ্চ নিরাপত্তা দেয়াও আশ্বাষ দেন এবং আমের সঙ্গে যাতে কোন প্রকার মাদক পরিবহন করা না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখার আহবান জানান।

পুঠিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মাহমুদের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম, চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাইদ চাঁদ, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকিল উদ্দিন আহম্মেদ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, বানেশ্বর আম হাটে আর মাত্র ১৫ দিন পরেই আমের বিশাল হাট বসবে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বানেশ্বর আম হাট কে কেন্দ্র করে সবধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। আইনশৃংখলা স্বাভাবিক রাখতে বাংলাদেশ পুলিশ, র‌্যাব, আনসার সহ কয়েকটি বাহিনী নিয়োজিত থাকবে এবং প্রতিদিন মাঠে থাকবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। থাকবে হেল্প ডেস্ক ও অভিযোগ বাক্স শুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমানের ভিত্তিতে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জেল জরিমানার ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উপজেলা প্রকল্পবাস্তবায়ন কর্মকর্তা সালাউদ্দিন আল ওয়াদুদের সঞ্চালনে মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মুনজুর রহমান, বানেশ্বর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গাজি সুলতান, সাবেক চেয়ারম্যান আবদুস সামাদ সহ কয়েকটি উপজেলার আমচাষী ও আম ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিখ্যাত ‘খিরসাপাত’ জাতের আম জিআই’ (ভৌগোলিক নির্দেশক) পণ্য হিসেবে নিবন্ধিত হতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে গেজেট জারি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। নিবন্ধন পেলে সুস্বাদু জাতের এই আম ‘চাঁপাইনবাবগঞ্জের খিরসাপাত আম’ নামে বাংলাদেশসহ বিশ্ব বাজারে পরিচিতি লাভ করবে।  এই আমের ...
রপ্তানি যোগ্য আম উৎপাদন করেও রপ্তানি করতে না পেরে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরা। কৃষি অধিদপ্তরের কোয়ারেন্টাইন উইংয়ের সাথে স্থানীয় কৃষি বিভাগের সমন্বয়হীনতার কারণে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে মে করেন বাগান মালিক ও চাষিরা। অন্যদিকে জেলার ...
রাজশাহী ও রংপুরের পর এবার মেহেরপুরেও তৈরি হচ্ছে বিদ্যুৎ বিহীন প্রাকৃতিক হিমাগার। এখানে অল্প খরচে সংরক্ষণ করা যাবে পিঁয়াজ ও আলু। এই হিমাগার সফলভাবে বাস্তবায়ন হলে ভবিষ্যতে আম ও লিচুর সংরক্ষণাগার তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তা। কৃষি বিভাগ বলছে, এই সংরক্ষণাগার ...
বাড়ছে আমের চাষ। মানসম্পন্ন আম ফলাতে তাই দরকার আধুনিক উত্পাদন কৌশল। আম চাষিদের জানা দরকার কীভাবে জমি নির্বাচন, রোপণ দূরত্ব, গর্ত তৈরি ও সার প্রয়োগ, রোপণ প্রণালী, রোপণের সময়, জাত নির্বাচন, চারা নির্বাচন, চারা রোপণ ও চারার পরিচর্যা করতে হয়। মাটি ও আবহাওয়ার কারণে দেশের ...
ফলের রাজা আম এ কথাটি যথাযথই বাস্তব। ফলের মধ্যে এক আমেরই আছে বাহারি জাত ও বিভিন্ন স্বাদ। মুখরোচক ফলের মধ্যে অামের তুলনা নেই। মৌসুমি ফল হলেও, এর স্থায়িত্ব বছরের প্রায় তিন থেকে চারমাস। এছাড়া ফ্রিজিং করে রাখাও যায়। স্বাদ নষ্ট হয় না। আমের ফলন ভালো হয় রাজশাহী অঞ্চলে। ...
ইসলামপুরের গাইবান্ধা ইউনিয়নের আগুনেরচরে একটি আম গাছের গোড়া থেকে গজিয়ে উঠেছে হাতসদৃশ মসজাতীয় উদ্ভিদ বা ছত্রাক। ওই ছত্রাককে অলৌকিক হাতের উত্থান এবং ওই হাত ভেজানো পানি খেলে যেকোন রোগ ভাল হয় বলে অপপ্রচার করছে স্থানীয় ভ- চক্র। আর ওই ভ-ামির ফাঁদে পা দিয়ে প্রতিদিন প্রতারিত হচ্ছেন ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২