Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

প্রশাসনের কড়া নজরদারিতে কপাল পুড়ল রাজশাহী আম চাষীদের

রাজশাহীতে সবচেয়ে বড় আমের পাইকারী বাজার বানেশ্বর। এই বাজারেই বাগানের আম বিক্রি করতে এসেছিলেন পবা উপজেলার কিসমতকুখন্ডি গ্রামের আজিম। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত থেকেও বাজারে তিনি আম বিক্রি করতে না পেরে ফিরে গেছেন। তিনি বললেন, এবার বাজারে বাইরে থেকে তেমন পাইকার আসেনি। রোজা শুরু হলেও বেচা-বিক্রি নেই। দামও কম।  জানা গেছে, জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্তের কারণে এবার কপাল পুড়েছে রাজশাহী আম চাষীদের। আমের বাম্পার ফলন হলেও দাম পাচ্ছেন না তারা। হাটে-বাজারে আমের ক্রেতা নেই। ফলে আম বাজারে নিয়ে বসে থেকে ফিরে যাচ্ছেন চাষী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।  বাঘা উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের আমচাষী মহসিন আলী জানান, গত বছর ১৮০০-২০০০ টাকা মণে ক্ষিরসাপাতি আম বিক্রি হলেও এবার তা ১২০০-১৫০০ টাকা মণে বিক্রি করতে হচ্ছে। বাজারে প্রচুর আম থাকলেও ক্রেতা নেই। ঢাকা, চট্টগ্রাম ও অন্যান্য জায়গা থেকে গত বছরগুলোতে পাইকার আসলেও এবার তাদের দেখা নেই। কারণ গত বছরগুলোতে রাজশাহী থেকে আম কিনে নিয়ে যাওয়ার সময় তাতে ফর্মালিন মেশাতো অনেক ব্যবসায়ীরা। কিন্তু এবার প্রশাসনের কড়া নজরদারি থাকায় ফর্মালিন মেশানো যাচ্ছে না। এ কারণেই এবার দুর থেকে আমের পাইকার আসছে না। আম পচনশীল হওয়ায় তারা ঝুকি নিতে চাচ্ছে না।  এবার প্রায় পঞ্চাশ বিঘা জমিতে আমের চাষ করেছেন রাজশাহীর পবা উপজেলার কাপাশিয়ার আসাদুজ্জামান আসাদ। তিনি বলেন, স্থানীয় প্রশাসনের কড়াকড়ির কারণে তিনি জুন মাসের আগে আম পেড়ে বিক্রি করতে পারেননি। এতে বিপাকে পড়েছেন। কারণ, বাগানের সব আমই এক সঙ্গে পাবে না। কয়েকদিনের ব্যবধানে পাকে। কিন্তু এখন সব আমই এক সাথে বাগান থেকে পেড়ে বাজারে আনা হচ্ছে। এতে আমদানি বেশি হচ্ছে। ফলে কমে গেছে দাম।  তিনি জানান, তার মতো এই অঞ্চলের অন্য আমচাষীদেরও একই অবস্থা। আমে ফরমালিন বা কেমিক্যাল মেশানো বন্ধে প্রশাসন রাজশাহী ৫জুনের আগে আম পাড়া নিষদ্ধি করেছিল।  রাজশাহীর বানেশ্বর বাজারের আড়তদার মঞ্জুর হাসান বলেন, এবার বাইরের ক্রেতা খুবই কম। অন্যান্য বছর গড়ে প্রতিদিন ২৫-৩০ ট্রাক আম জেলার বাইরে পাঠানো হতো। এবার সর্বোচ্চ ছয় ট্রাক করে আম যাচ্ছে। গত বছর ঢাকা ও চট্টগ্রামে আম নিয়ে যাওয়ার সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত ফরমালিন পরীক্ষা করে প্রচুর আম রাস্তায় নষ্ট করে ফেলেন। এবারও ব্যবসায়ীরা পুলিশি অভিযানের ভয়ে আছে।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
জৈষ্ঠ্য মাসের প্রথম সপ্তাহে জেলার হিমসাগর আম গেল ইউরোপে। আর এর মধ্য দিয়েই আম রপ্তানিতে কৃষি বিভাগের প্রচেষ্টা তৃতীয়বারের মতো সাফল্যের মুখ দেখলো। সোমবার রাতে রপ্তানির প্রথম চালানেই জেলার দেবহাটা উপজেলার ছয়জন চাষী ও সদর উপজেলার তিনজন চাষীর বাগানের হিমসাগর আম পাঠানো হলো ...
মধূ মাসে বাজারে উঠেছে পাকা আম। জেলা শহর থেকে ৬০ কি.মি দুরের প্রত্যন্ত ভোলাহাট উপজেলার স্থানীয় বাজারে ফরমালিন মুক্ত গাছপাকা আম এখন চড়া দামে বিক্রয় হচ্ছে। মালদহ সীমান্তবর্তী বিশাল আমবাগান ঘেরা এই উপজেলায় বেশ কিছু জায়গা ঘুরে বাজারগুলোতে শুধু গাছপাকা আম পেড়ে বিক্রয় করতে দেখা ...
বাজারে আম সহ মাছ, ফল, সবজিসহ বিভিন্ন খাদ্য সংরক্ষণে যখন হরহামেশাই ব্যবহার হচ্ছে মানবদেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর রাসায়নিক উপাদান ফরমালিন, ঠিক তখনই এর বিকল্প আবিষ্কার করেছেন বাংলাদেশের বিজ্ঞানী ড. মোবারক আহম্মদ খান। বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের প্রধান এই বৈজ্ঞানিক ...
সারা দেশে যখন ‘ফরমালিন’ বিষযুক্ত আমসহ সব ধরনের ফল নিয়ে মানুষের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে, তখন বরগুনা জেলার অনেক সচেতন মানুষ বিষমুক্ত ফল খাওয়ার আশায় ভিড় জমাচ্ছেন মজিদ বিশ্বাসের আমের বাগানে। জেলার আমতলী উপজেলার আঠারগাছিয়া ইউনিয়নে শাখারিয়া-গোলবুনিয়া গ্রামে মজিদ বিশ্বাসের ২ একরের ...
গাছ ফল দেবে, ছায়া দেবে; আরও দেবে নির্মল বাতাস। আশ্রয় নেবে পাখপাখালি, কাঠ বেড়ালি, হরেক রকম গিরগিটি। গাছ থেকে উপকার পাবে মানুষ, পশুপাখি, কীটপতঙ্গ– সবাই। আর এতেই আমি খুশি। ঐতিহাসিক মুজিবনগর আম্রকাননে ছোট ছোট আমগাছের গোড়া পরিচর্যা করার সময় এ কথাগুলো বলেন বৃক্ষ প্রেমিক জহির ...
আম গাছ কে দেশের জাতীয় গাছ হিসেবে ঘোষনা দাওয়া হয়েছে। আর এরই প্রতিবাদে কিছুদিন আগে এক সম্মেলন হয়ে গেলো যেখানে বলা হয়েছে :-"৮৫% মমিন মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ। ঈমান আকিদায় দুইন্নার কুন দেশেরথে পিছায় আছি?? আপনেরাই বলেন। অথচ জালিম সরকার ভারতের লগে ষড়যন্ত কইরা আমাগো ঈমানের লুঙ্গি ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২