Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

হারিয়ে যাচ্ছে গোপালভোগ!‌

"জামাইষষ্ঠীতে ঝোড়ো ইনিংস খেলল মালদার গোপালভোগ। জামাইরা বুধবার চেটেপুটে স্বাদ নিলেন ঐতিহ্যবাহী আমটির। আজও সমান অটুট তার গরিমা। এবার বিদায়ের হাতছানি। দু’–‌চারদিনের মধ্যেই টা–‌‌টা জানাবে সে। এখন হাতে সময় একেবারেই নেই বললেই চলে। আম–‌‌রসিকরা এখনও যাঁরা গোপালভোগের স্বাদ নেননি, অবিলম্বে বাজার থেকে নিয়ে যান প্রিয় আমটি। জেলা উদ্যানপালন দপ্তরের উপ–‌অধিকর্তা রাহুল চক্রবর্তী জানান, জেলায় মোট উৎপাদনের শতকরা ৫ ভাগ গোপালভোগ। আমের মরশুমটা শুরু হয় গোপালভোগ দিয়ে। যেহেতু উৎপাদন কম, খুব তাড়াতাড়ি শেষও হয়ে যায় আমটি। সাধারণত জামাইষষ্ঠীর সপ্তাহখানেক আগে থেকে আম পাড়া শুরু হয়। ষষ্ঠীর পর ৫–‌‌৬ দিনের মধ্যে বিদায় নিয়ে থাকে গোপালভোগ। এখন হাতে মাত্র আর কয়েক‌টা দিন। গোপালভোগ জেলাবাসীর সবচেয়ে প্রিয়। তাহলে উৎপাদন এত কম কেন?‌ স্বাদে, গন্ধে এত জনপ্রিয়তার পরেও চাষীরা উৎসাহ দেখাচ্ছেন না কেন?‌ কেনই–‌বা আমের উৎপাদন বাড়ানোর ব্যাপারে নতুন করে ভাবা হচ্ছে না?‌ তাহলে কি কিছুদিন পর ইতিহাসের পাতায় দেখা যাবে জনপ্রিয় আমটি?‌ চাষীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, এই আমের ফলনটা অন্যান্য আমের থেকে তুলনামূলক কম। গাছ মাঝেমধ্যেই বিশ্বাসঘাতকতা করে থাকে। অন্যান্য গাছে যেখানে দেদার মুকুল, তখন হয়ত গোপালভোগের গাছে মুকুলের দেখা নেই। এ ছাড়া আম হলেও গাছেই নষ্ট হয়ে যায় বেশ কিছু। চাষীরা এই গাছকে বাগে আনতে একরকম ব্যর্থ। অনেকে সে‌জন্যই গোপালভোগকে প্রতারক বলে থাকে। জেলায় যে অল্পসংখ্যক গাছ আছে, চাষীরা সেই গাছের আম নিজেদের খাওয়ার জন্যই রাখে বেশিরভাগ। কিছু আম বাজারে আসে। দামও আকাশছোঁয়া। বুধবারও বিক্রি হয়েছে কেজি প্রতি ৫০ টাকার ওপর। এখন যা সমস্যা তাতে কি গোপালভোগ আস্তে আস্তে হারিয়ে যাচ্ছে‌‌‌!‌ চাষীরা জানাচ্ছেন, যে–‌সব গাছ আছে সেগুলি অনেক পুরনো। বেশি বয়সের। নতুন করে আর কেউ গাছ লাগাতে চাইছেন না। আবার পুরনো বলে স্বাভাবিকভাবে ফলনও কম। পাশাপাশি চাষীদের এখন চাহিদা হিমসাগর, আম্রপালি, লক্ষ্মণভোগের দিকে। বেশি বেশি ফলন, তাই। চাষীরা বেশি লাভ করে থাকেন এই সব আমে। স্বাভাবিকভাবেই চাষীদের কাছে চাহিদাও বেশি। যদিও এখনও দিন পনেরো লাগবে আম্রপালি বাজারে আসতে। তার পর লক্ষ্মণভোগ, হিমসাগর। কিন্তু কিছু ভিনজেলার আম মালদার আম্রপালি, লক্ষ্মণভোগ বলে চালানো হচ্ছে বাজারে। কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর চক্করে পড়ে ঠকছেন জেলার সাধারণ মানুষ। ভুল আমের স্বাদ নিয়ে ফেলছেন তাঁরা। সচেতন হওয়া উচিত  তাঁদের।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিখ্যাত ‘খিরসাপাত’ জাতের আম জিআই’ (ভৌগোলিক নির্দেশক) পণ্য হিসেবে নিবন্ধিত হতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে গেজেট জারি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। নিবন্ধন পেলে সুস্বাদু জাতের এই আম ‘চাঁপাইনবাবগঞ্জের খিরসাপাত আম’ নামে বাংলাদেশসহ বিশ্ব বাজারে পরিচিতি লাভ করবে।  এই আমের ...
ফলের রাজা আম।বাংলাদেশ এবং ভারত এ যে প্রজাতির আম চাষ হয় তার বৈজ্ঞানিক নাম Mangifera indica. এটি Anacardiaceae পরিবার এর সদস্য। তবে পৃথিবীতে প্রায় ৩৫ প্রজাতির আম আছে। আমের বিভিন্ন জাতের মাঝে আমরা মূলত ফজলি, ল্যাংড়া, গোপালভোগ, ক্ষিরসাপাত/হীমসাগর,  আম্রপালি, মল্লিকা,আড়া ...
গাছ থেকে আম অনায়াসে চলে আসবে নিচে। পড়বে না, আঘাত পাবে না, কষ ছড়াবে না, ডালও ভাঙবে না। গাছ থেকে এভাবে আম নামানোর আধুনিক ঠুসি (ম্যাঙ্গো হারভেস্টর) উদ্ভাবন করেছেন একজন চাষি। এই চাষির নাম হযরত আলী। বাড়ি নওগাঁর মান্দা উপজেলার কালিগ্রামে। তিনি গ্রামের শাহ কৃষি তথ্য পাঠাগার ও ...
আম রফতানির মাধ্যমে চাষিদের মুনাফা নিশ্চিত করার উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। এজন্য দেশে বাণিজ্যিকভাবে আমের উৎপাদন, কেমিক্যালমুক্ত পরিচর্যা এবং রফতানি বাড়াতে সরকার বিশেষ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে। সে লক্ষ্যে গাছে মুকুল আসা থেকে শুরু করে ফল পরিপক্বতা অর্জন, আহরণ, গুদামজাত, পরিবহন এবং ...
গাছ ফল দেবে, ছায়া দেবে; আরও দেবে নির্মল বাতাস। আশ্রয় নেবে পাখপাখালি, কাঠ বেড়ালি, হরেক রকম গিরগিটি। গাছ থেকে উপকার পাবে মানুষ, পশুপাখি, কীটপতঙ্গ– সবাই। আর এতেই আমি খুশি। ঐতিহাসিক মুজিবনগর আম্রকাননে ছোট ছোট আমগাছের গোড়া পরিচর্যা করার সময় এ কথাগুলো বলেন বৃক্ষ প্রেমিক জহির ...
আম গাছ কে দেশের জাতীয় গাছ হিসেবে ঘোষনা দাওয়া হয়েছে। আর এরই প্রতিবাদে কিছুদিন আগে এক সম্মেলন হয়ে গেলো যেখানে বলা হয়েছে :-"৮৫% মমিন মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ। ঈমান আকিদায় দুইন্নার কুন দেশেরথে পিছায় আছি?? আপনেরাই বলেন। অথচ জালিম সরকার ভারতের লগে ষড়যন্ত কইরা আমাগো ঈমানের লুঙ্গি ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২