Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ম্যাংগো ক্যালেন্ডার

চাঁপাইনবাবগঞ্জে চলতি মৌসুমে আগামী ২৫ মে থেকে আম পাড়া ও বাজারজাতের নির্ধারিত সময় বেঁধে দিয়েছে প্রশাসন। বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ‘ম্যাংগো ক্যালেন্ডার’ প্রণয়ণের লক্ষে সংশ্লিস্ট পক্ষসমুহকে নিয়ে সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আম আৎদার, ব্যবসায়ী, চাষী, কৃষি দপ্তর, পরিবহন ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভার সিদ্ধান্ত অনুয়ায়ী গোপাল ভোগ আম পাড়ার সময় ২৫ মে, হিমসাগর বা খিরশাপাত আম ২৮ মে হতে, লক্ষনভোগ/লক্ষন ১ জুন, ল্যাংড়া ও বোম্বাই- ৫ জুন, ফজলি, সুরমা ফজলি ও আম্রপালি ১৫ জুন।

আশ্বিনা আম পাড়ার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে ১ জুলাই। পর্যায়ক্রমে যখন যে জাতের আম পরিপক্ক হবে সে আমটি যাতে পাড়া হয় সেই লক্ষে সবার মতমত নিয়ে আমের ক্যালেন্ডার তৈরী করা হয়েছে। তবে ক্যালেন্ডারের সময়সীমার আগেই যদি কারো গাছে আম পাকে তাহলে তিনি কৃষি বিভাগকে জানালে ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাঁর গাছ পরিদর্শন করে তাঁকে আম পাড়ার অনুমতি দেয়া হবে। ফলে, আম পাড়ার সময় নিয়ে সংশয় দূর হলো চাষীদের। বিগত বছরগুলিতে গাছে আম পেকে যাওয়ার পরও বাজারজাত না করতে পারায় অনেক চাষী ও ব্যবসায়ী ক্ষতির সম্মুখীন হন।

এ নিয়ে প্রশাসনের সাথে সংশ্লিষ্টদের দ্বন্দ সৃষ্টি হত। চলতি মৌসুমে চাষী বা ব্যবসায়ীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সে লক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় আমে অবৈধ কেমিক্যাল মিশিয়ে বাজারজাতকরণ ও অসময়ে আম বাজারজাতকরণ রোধ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

সভায় আমের ওজনে কারচুপির বিষয়টিও উঠে আসে। আমের মন ৪০ কেজিতে নির্ধারিত হবে। ওজনে ডিজিটাল পাল্লা ব্যবহার না হলে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা সহ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানানো হয়। এছাড়া আমের ওজনে কৃষক পর্যায়ে চাঁদাবাজি ও পরিবহনে চাঁদাবাজির বিষয়েও আলোচনা হয়। এ সব কঠোরভাবে দমনের সিদ্ধান্ত হয়। জেলার কানসাট ও অনান্য স্থানে সড়কে আমের ট্রাক লোড করার মাধ্যমে যানজট সৃষ্টির ব্যাপারেও আলোচনা হয়।

সড়কে ট্রাক লোডের সময়সীমা রাত ৮টার পরে নির্ধারিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মঞ্জুরুল হুদা, কল্যাণপুর উদ্যানতত্ব কেন্দ্রের উপপরিচালক ড.সাইফুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তৌফিকুল ইসলাম, ভোলাহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম, আঞ্চলিক উদ্যানত্ব গবেষনা কেন্দ্রের উদ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আশরাফুল আলম, কানসাট ইউপি চেয়ারম্যান বেনাউল ইসলাম, ভোলাহাট আম ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক, কানসাট আম আড়তদার সমিতির সভাপতি হাবিবুর রহমান প্রমুখ। জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান জানান, স্বাস্থ্যসম্মত আম উৎপাদনের লক্ষে তাঁরা একটি কর্মপরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন।

ইতিমধ্যেই জেলা ব্রান্ডিং এর অংশ হিসাবে ‘আম’-কে তুলে ধরা হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, জেলার ৫টি উপজেলায় এ বছর ২৬ হাজার ১৫০ হেক্টর জমির আম বাগানে প্রায় আড়াইশ জাতের ২২ লক্ষ আম গাছে আড়াই লক্ষাধিক মেট্রিক টন (হেক্টরপ্রতি ১০ টন) আম উৎপাদনের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ হয়েছে।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
মালদার আমের কদর দেশজোড়া। কিন্তু বিশ্ববাজারে? সেদিকে নজর রেখেই এবার দিল্লির আম উত্সবে যাচ্ছে মালদা আর মুর্শিদাবাদের বাছাই করা আম। শনিবারই দিল্লি পাড়ি দিচ্ছে চব্বিশ মেট্রিক টন আম।  হিমসাগর, গোলাপখাস থেকে ফজলি। মালদার আমের সুখ্যাতি গোটা দেশে। যেমন স্বাদ, তেমনি গন্ধ। ...
ফলের রাজা আম।বাংলাদেশ এবং ভারত এ যে প্রজাতির আম চাষ হয় তার বৈজ্ঞানিক নাম Mangifera indica. এটি Anacardiaceae পরিবার এর সদস্য। তবে পৃথিবীতে প্রায় ৩৫ প্রজাতির আম আছে। আমের বিভিন্ন জাতের মাঝে আমরা মূলত ফজলি, ল্যাংড়া, গোপালভোগ, ক্ষিরসাপাত/হীমসাগর,  আম্রপালি, মল্লিকা,আড়া ...
চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার ভোলাহাট আম ফাউন্ডেশনে উন্নত ও আধুনিক পদ্ধতি ব্যবহার করে আম বাজারজাতকরণের লক্ষ্যে আমচাষীদের নিয়ে পরীক্ষামূলক প্রদর্শনী ও সভা হয়েছে।  বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) সকাল থেকে শুরু হয়ে দিনব্যাপী চলা বিভিন্ন প্রদর্শনীতে এলাকার আমচাষী ও ব্যবসায়ীরা অংশ ...
রাজধানীর মালিবাগের আবদুস সালাম। বয়স ৭২ বছর। তার চার তলার বাড়িতে রয়েছে একটি দুর্লভ ‘ছাদবাগান’। শখের বসে এ বাগান করেছেন। বছরের সব ঋতুতেই পাওয়া যায় নানা ধরনের ফল। এখনো পাকা আম ঝুলে আছে ওই ছাদবাগানে। শুধু আম নয়, ৫ কাঠা ওই বাগানজুড়ে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ফুল, ফলসহ অন্তত ১০০ ...
প্রাচীনকাল থেকেই বিভিন্ন দেশের পর্যটকেরা ভারতে আসা যাওয়া করেছেন। তাদের বিবেচনায় আম দক্ষিন এশিয়ার রাজকীয় ফল। জগৎ বিখ্যাত পর্যটক ফাহিয়েন, হিউয়েন সাং, ইবনে হাষ্কল, ইবনে বতুতা, ফ্লাঁয়োসা বর্নিয়ের এরা সকলেই তাদের নিজ নিজ কর্মকান্ড ও লেখনির মাধ্যমে আমের এরুপ উচ্চ গুনাগুনের ...
ইসলামপুরের গাইবান্ধা ইউনিয়নের আগুনেরচরে একটি আম গাছের গোড়া থেকে গজিয়ে উঠেছে হাতসদৃশ মসজাতীয় উদ্ভিদ বা ছত্রাক। ওই ছত্রাককে অলৌকিক হাতের উত্থান এবং ওই হাত ভেজানো পানি খেলে যেকোন রোগ ভাল হয় বলে অপপ্রচার করছে স্থানীয় ভ- চক্র। আর ওই ভ-ামির ফাঁদে পা দিয়ে প্রতিদিন প্রতারিত হচ্ছেন ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২