Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

ভোলাহাটে বিষাক্ত কালটার ব্যবহারে মরছে আমগাছ

ভারত সীমান্ত  দিয়ে চোরাই পথে আসছে কালটার। বেশি ফলন লাভের আশায় সে কালটার ব্যবহার করে  আমগাছের শিকড় কেটে রাতের অন্ধকারে অতিরিক্তমাত্রায় কালটার ব্যবহার করা হচ্ছে। ফলে ক’বছর যেতে না যেতেই ৫ থেকে ৫০ মণ পর্যন্ত আম উৎপাদন হওয়া আমগাছ মারা যাচ্ছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট উপজেলা আমের রাজধানী হিসেবে খ্যাত। এ উপজেলার প্রধান অর্থকারী ফসল আম। এক বছর আম না হলে ঘরে ঘরে দূর্যোগ নেমে আসে। আমবাগান মালিকেরা পরির্চচা করতে না পেরে এমনকি আর্থিক সমস্যার কারণে ৩ থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত পাতায় আমবাগান বিক্রি করে আমব্যাসায়ীর কাছে। আমব্যবসায়ীরা নন জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পের মাধ্যমে আমবাগান ক্রয় করে থাকে। পরে আমবাগান মালিকেরা আম ব্যবসায়ীদের উপর গভীর বিশ্বাসের উপর ছেড়ে দিয়ে আমবাগানে যাওয়া আসা ছেড়ে দেন।
আর এরই সুযোগেই রাতের আধারে চলছে কালটার বিষ প্রয়োগের কার্যক্রম। এতে আমব্যবসায়ীরা সাময়িক লাভবান হলেও আমগাছ মরে যাওয়া চরম ক্ষতির মূখে পড়েছেন আমবাগান মালিকেরা।

আমবাগানকে ঘিরে গড়ে উঠা বেসরকারী সংস্থা আম ফাউন্ডেশন নানা বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করলেও কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না খোড়া ঘুড়ার মতই অবস্থা। আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো দায়িত্ব নিয়ে কাজ করলে ভারত থেকে পাচার হয়ে আসা বিষাক্ত কালটার থেকে কিছুটা হলেও রক্ষা পাওয়া সম্ভব বলে আমবাগান মালিকেরা জানান।

উপজেলার চরধরমপুর গ্রামের আমবাগান মালিক মোশাররফ হোসেন অভিযোগ করে সিল্কসিটি নিউজকে বলেন, তার তাঁতীপাড়া মৌজার, ১৭৭ নম্বর খতিয়ানের ১৭০ ও ১৭১ নম্বর দাগের ১একর ৩৩শতাংশ জমিতে ৫০টি আমগাছের একটি আমবাগান ২০১৪ সাল হতে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ৪ বছরের জন্য উপজেলার যাদুনগর গ্রামের অবৈধ আমব্যবসায়ী শাহাজাহান বাবুর কাছে বিক্রয় করে । নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে চুক্তি করে পরে জালিয়াতি করে ২য় স্ট্যাম্পের বাম পাশে আমগাছ মরে গেলে বাগান মালিককে দায়িত্ব নিতে হবে বলে জালিয়াত করে।

তিনি বলেন, আমবাগানে বিষাক্ত কালটার ব্যবহার করার উদ্দেশ্যে এ জালিয়াত করেছে। বর্তমানে কালটার ব্যবহারের কারণে ১৭টি আমগাছ মরতে বসেছে। এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন স্থানে কালটার ব্যবহারে আমগাছ মরে যাওয়ায় আমবাগান মালিকেরা চরম হতাশ হয়ে পড়েছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল ওয়াদুদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি উপজেলার আমবাগানে গোপনে কালটার ব্যবহারের বিষয়টি স্বীকার করলেও এ ব্যাপারে ব্যাপক প্রচার প্রচারনা চালানো হচ্ছে বলে জানান। তবে কালটার ব্যবহারে সংশ্লিষ্ট সকলকে সর্তক থেকে প্রতিরোধ করতে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

এদিকে আমফাউন্ডেশন ভোলাহাটের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক চুটু সিল্কসিটি নিউজকে বলেন, কালটার মানব দেহে যে ক্যান্সার রয়েছে তার চেয়েও ভয়াবহ কালটার। কালটার ব্যবহারে ক্ষতিকর দিকগুলো তুলে ধরে বিভিন্ন ভাবে সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে ফাউন্ডেশন।

সচেতনমহল সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে ভোলাহাটের একমাত্র অর্থকরী ফসল আমকে বাঁচাতে কালটার ব্যবহার বন্ধের দাবী জানিয়েছেন।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
মাটি ও আবহাওয়ার কারণে মেহেরপুরের সুস্বাদু হিমসাগর আম এবারও দেশের বাইরে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) ভুক্ত দেশগুলোতে রফতানি হতে যাচ্ছে।   গত বছর কীটনাশক মুক্ত আম প্রথম বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করার ফলে এ অঞ্চলের আমচাষীদের মধ্যে উৎসাহ দেখা দেয়। গত বছর ১২ মেট্রিক টন আম ইউরোপিয়ান ...
আম ও আমজাত পণ্য রপ্তানী বিয়য়ে সেমিনার হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বারের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় রপ্তানীর প্রশিক্ষন কর্মসুচীর আওতায় শনিবার সকালে দিনব্যাপী সেমিনারের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ জাহিদুল ইসলাম। আলোচনার মাধ্যমে আম রপ্তানী ও বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের ...
ঝিনাইদহে দিন দিন বাড়ছে আম চাষের আবাদ। স্বাস্থ্য ঝুঁকিবিহীন জৈব আর ব্যাগিং পদ্ধতিতে আম চাষ করছে এই এলাকার আমচাষিরা। এ বছর ফলন ভালো হওয়ার আশায় খুশি তারা। জেলা থেকে বিদেশে রপ্তানী আর আম সংরক্ষণের দাবি চাষিদের। জানা যায়, ২০১১ সালে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলায় আমের আবাদি জমির ...
সারা দেশে যখন ‘ফরমালিন’ বিষযুক্ত আমসহ সব ধরনের ফল নিয়ে মানুষের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে, তখন বরগুনা জেলার অনেক সচেতন মানুষ বিষমুক্ত ফল খাওয়ার আশায় ভিড় জমাচ্ছেন মজিদ বিশ্বাসের আমের বাগানে। জেলার আমতলী উপজেলার আঠারগাছিয়া ইউনিয়নে শাখারিয়া-গোলবুনিয়া গ্রামে মজিদ বিশ্বাসের ২ একরের ...
প্রাচীনকাল থেকেই বিভিন্ন দেশের পর্যটকেরা ভারতে আসা যাওয়া করেছেন। তাদের বিবেচনায় আম দক্ষিন এশিয়ার রাজকীয় ফল। জগৎ বিখ্যাত পর্যটক ফাহিয়েন, হিউয়েন সাং, ইবনে হাষ্কল, ইবনে বতুতা, ফ্লাঁয়োসা বর্নিয়ের এরা সকলেই তাদের নিজ নিজ কর্মকান্ড ও লেখনির মাধ্যমে আমের এরুপ উচ্চ গুনাগুনের ...
নব্য জেএমবির বিভিন্ন সদস্যকে গ্রেপ্তার এবং সর্বশেষ সংগঠনের প্রধান আব্দুর রহমানের কাছ থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র সংগ্রহ করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। প্রায় ১৯টির মতো সাংগঠনিক চিঠিও উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে ৯টি চিঠি পাঠিয়েছেন নিহত আব্দুর রহমান ওরফে ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২