Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

মাইক্রোবাস থেকে ছোড়া বোমায় আহত ২

চাঁপাই নবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার এক সময়ের সন্ত্রাসের জনপদ নয়ালাভাঙাতে মাইক্রোবাস হতে ছোড়া বোমার আঘাতে দুই জন আহত হয়েছে। গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শিবগঞ্জ উপজেলার নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নের হরিনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- রানিহাটি ইউনিয়নের বহরম গ্রামের সোহরাব আলীর ছেলে মো. কামাল হোসেন (৩৭) ও একই এলাকার শীষ মোহাম্মদের ছেলে মো. আবু বাক্কার (৩২)।
শিবগঞ্জ থানার অপারেশন ওসি মো.কবির হোসেন জানান, রানিহাটিতে দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুটি গ্রুপের দ্বন্দ্ব চলছে। গতকাল বেলা ১১টার দিকে কামাল, আবু ও আবু বাক্কার রানিহাটি কলেজ এলাকা থেকে মোটরসাইকেল যোগে হরিনগর মোড়ে যাচ্ছিল। মোড়ে আসা মাত্রই মাইক্রোবাসে থাকা দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেলকে লক্ষ্য করে বোমা নিক্ষেপ করলে কামাল হোসেন ও আবু বাক্কার গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে চাঁপাই নবাবগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
অবস্থার অবনতি হওয়ায় সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

অপারেশন ওসি মো. কবির হোসেন আরো জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হামলাকারীদের ধরতে অভিযান শুরু করেছে। সেখানে পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা টহলে রয়েছে। সর্বশেষ বিকাল পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ করেনি।

Comment (0) Hits: 549
 

রানীহাটিতে প্রতিপক্ষের বোমা হামলায় উড়ে গেল হাত

চাঁপাইনবাবগঞ্জের রানীহাটিতে দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের বোমা হামলায় দু ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন-রানীহাটি ইউনিয়নের বহরম গ্রামের সোহরাব আলীর ছেলে মো. কামাল হোসেন (৩৫) ও একই এলাকার শীষ মোহাম্মদের ছেলে মো. আবু। সোমবার বেলা ১১টার দিকে শিবগঞ্জ উপজেলার নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নের হরিনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মো. হাবিবুল ইসলাম জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের রানীহাটি ইউনিয়নে দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে কালাম ও মহসিন গ্রুপের দ্বন্দ¦ চলছে। সোমবার বেলা ১১টার দিকে কামাল, আবু ও আবু বাক্কার রানীহাটি কলেজ এলাকা থেকে মোটর সাইকেল যোগে হরিনগর মোড়ে আসছিল। সেখানে আসা মাত্রই আগে থেকে ওঁৎপেতে থাকা কালাম গ্রুপের নেতা রহমতের নেতৃত্বে মাইক্রোবাসে থাকা ৮/১০ জনের একটি দল মোটর সাইকেলকে লক্ষ্য করে বোমা নিক্ষেপ করলে মহসিন গ্রুপের সমর্থক কামাল হোসেন গুরুতর আহত হয়। এসময় আবুও আহত হয়। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নুরুন্নাহার নাসু জানান, আহত কামালের ডান হাতের উপরের বেশির ভাগ অংশ উড়ে গেছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Comment (0) Hits: 484
 

বিদেশে আম রপ্তানীতে আগ্রহী নবাবগঞ্জের আমচাষীরা

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ থেকে চলতি মৌসুমে আম বিদেশে রপ্তানির লক্ষ্যে উপজেলার মাহমুদপুর ফলচাষী সমবায় সমিতি লিমিটেডের বাগানিরা আম বাগানের নিবিড় পরিচর্যা শুরু করেছে । উপজেলা কৃষি অধিপ্তরের সহায়তায় বিষ মুক্ত ও রপ্তানীযোগ্য আম উৎপাদনের জন্য তারা সেক্স ফেরোমন ফাঁদ ও ফ্রুট ব্যাগিং পদ্ধতি ব্যবহারের প্রস্তুতি শুরু করেছে। ইতিমধ্যে বাগানিরা এর ওপর প্রশিক্ষণও গ্রহন করেছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, আম চাষে জেলার সবচেয়ে উপযুক্ত ও নির্ভরযোগ্য এলাকা মাহমুদপুর ইউনিয়ন। আমের ভাল ফলন হওয়ায় ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামেই শত শত বিঘাতে আমের বাগান গড়ে তোলা হয়েছে। কৃষি জমিতে ধান, গম, সরিষা, আলুর সাথে সাথী ফসল হিসেবে উন্নতমানের হাড়িভাঙ্গা ও বোম্বাই প্রজাতির আম চাষ হয় এবং চলতি বছরে ফলনও আশানুরূপ হয়েছে।

মাহমুদপুর ফল সমবায় সমিতি লি.-এর সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, এ এলাকার আম গুণগতমান ভালো। এখানকার আম বিদেশে রপ্তানিকল্পে উপজেলা কৃষি অফিস ও উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মানসম্মত আম উৎপানের জন্য গেল বছর চাঁপাইনবাবগঞ্জ আম গবেষণা কেন্দ্র থেকে গবেষকদের নিয়ে এসে আম চাষিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। চলতি বছরেও প্রশিক্ষন ও সেমিনারের প্রস্তুতি চলছে। এ বছর আমের বাম্পার ফলন হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে ও রোগ বালাই না ধরলে এবং রপ্তানীতে প্রক্রিয়ায় সহায়তা পেলে এ বছর নবাবগঞ্জ উপজেলা থেকে ১০০ মেঃ টন উন্নত জাতের আম বিদেশে রপ্তানী করার লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে।

নবাবগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু রেজা মোঃ আসাদুজ্জামান জানান- উপজেলাতে প্রায় ৮০৫ হেক্টর জমিতে আমচাষ করা হয়েছে। এ বছর উপজেলাতে ৫০ হাজার মেঃ টন আম উৎপাদনের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিস থেকে আম উৎপাদনে চাষিদের সব ধরনের সহায়তা করা হচ্ছে।

Comment (0) Hits: 791

ভাল আম চেনার সহজ উপায়

ভাল আম চেনার সহজ উপায়

ফলের রাজা আম।বাংলাদেশ এবং ভারত এ যে প্রজাতির আম চাষ হয় তার বৈজ্ঞানিক নাম Mangifera indica. এটি Anacardiaceae পরিবার এর সদস্য। তবে পৃথিবীতে প্রায় ৩৫ প্রজাতির আম আছে।

আমের বিভিন্ন জাতের মাঝে আমরা মূলত ফজলি, ল্যাংড়া, গোপালভোগ, ক্ষিরসাপাত/হীমসাগর,  আম্রপালি, মল্লিকা,আড়া জাম, কাচামিঠা, সুবর্নরেখা, মিশ্রিদানা, নিলাম্বরী, কালীভোগ, অরুনা, আলফানসো, বারোমাসি, তোতাপূরী, কারাবাউ, কেঊই সাউই, গোপাল খাস, কেন্ট, সূর্যপূরী, পাহুতান, ত্রিফলা ইত্যাদির দেখা পাই।

এখন গ্রীষ্মকাল শুরু হয়েছে । এখন থেকেই বাজারে উঠতে শুরু করেছে গ্রীষ্মকালীন এই ফল। আমাদের দেশে মধু মাসের আগমরে সাথে সাথে আম ও নানা ধরনের অন্যান্য মৌসুমি ফলের সুঘ্রান ছড়িয়ে পরেছে দেশের চারদিকে । তবে এইসব ফল কতটুকু স্বাস্থ্য সম্মত তা জানা ধরকার আছে । এই ধরনের ফলগুলোতে বহু পরিমাণে ব্যববহৃত হচ্ছে ফরমালিন । আর এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয় ফলের রাজা আম ।

আর এই ফরমালিন যুক্ত আম সহ নানান ফল খেয়ে আমাদেরকে অনেক ঝুঁকিপূর্ণ রোগের সাথে লড়াই করতে হয় । তাই ফরমালিন যুক্ত ফলমূলের বাজার জাত করা রোধ না করতে পারলে ফরমালিন মুক্ত ফল পাওয়া দুষ্কর ব্যপার হয়ে দাড়াবে । তাই একটু সতর্ক হলেই খুব সহজেই চিনে নেয়া যাবে ফরমালিনমুক্ত আম ।

১)প্রথমেই লক্ষ্য করুন যে আমের গায়ে মাছি বসছে কিনা। কেননা ফরমালিন যুক্ত আমে মাছি বসবে না।

২)আম গাছে থাকা অবস্থায়, বা গাছ পাকা আম হলে লক্ষ্য করে দেখবেন যে আমের শরীরে এক রকম সাদাটে ভাব থাকে। কিন্তু ফরমালিন বা অন্য রাসায়নিকে চুবানো আম হবে ঝকঝকে সুন্দর।

৩)কারবাইড বা অন্য কিছু দিয়ে পাকানো আমের শরীর হয় মোলায়েম ও দাগহীন। কেননা আম গুলো কাঁচা অবস্থাতেই পেড়ে ফেলে ওষুধ দিয়ে পাকানো হয়। গাছ পাকা আমের ত্বকে দাগ পড়বেই।

৪)গাছপাকা আমের ত্বকের রঙে ভিন্নতা থাকবে। গোঁড়ার দিকে গাঢ় রঙ হবে, সেটাই স্বাভাবিক। কারবাইড দেয়া আমের আগাগোড়া হলদেটে হয়ে যায়, কখনো কখনো বেশি দেয়া হলে সাদাটেও হয়ে যায়।

৫) হিমসাগর ছাড়াও আরও নানান জাতের আম আছে যারা পাকলেও সবুজ থাকে, কিন্তু অত্যন্ত মিষ্টি হয়। ওষুধ দিয়ে পাকানো হলে আমের শরীর হয় মসৃণ ও সুন্দর।

৬) আম নাকের কাছে নিয়ে ভালো করে শুঁকে কিনুন। গাছ পাকা আম হলে অবশ্যই বোটার কাছে ঘ্রাণ থাকবে। ওষুধ দেয়া আম হলে কোনও গন্ধ থাকবে না, কিংবা বিচ্ছিরি বাজে গন্ধ থাকবে।

৭) আম মুখে দেয়ার পর যদি দেখেন যে কোনও সৌরভ নেই, কিংবা আমে টক/ মিষ্টি কোনও স্বাদই নেই, বুঝবেন যে আমে ওষুধ দেয়া।

৮) আম কেনা হলে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এমন কোথাও রাখুন যেখানে বাতাস চলাচল করে না। গাছ পাকা আম হলে গন্ধে মৌ মৌ করে চারপাশ। ওষুধ দেয়া আমে এই মিষ্টি গন্ধ হবেই না।

Comment (0) Hits: 1367
বাজারে গত মাসের মাঝামাঝি সময় থেকেই আম আম রব। ক্রেতা যে আমেই হাত দিক না কেন দোকানি বলবে হিমসাগর নয়তো রাজশাহীর আম। ক্রেতা সতর্ক না বলে রঙে রূপে একই হওয়ায় দিব্যি গুটি আম চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে হিমসাগরের নামে। অনেকসময় খুচরা বিক্রেতা নিজেই জানে না তিনি কোন আম বিক্রি করছেন। ...
ফলের রাজা আম।বাংলাদেশ এবং ভারত এ যে প্রজাতির আম চাষ হয় তার বৈজ্ঞানিক নাম Mangifera indica. এটি Anacardiaceae পরিবার এর সদস্য। তবে পৃথিবীতে প্রায় ৩৫ প্রজাতির আম আছে। আমের বিভিন্ন জাতের মাঝে আমরা মূলত ফজলি, ল্যাংড়া, গোপালভোগ, ক্ষিরসাপাত/হীমসাগর,  আম্রপালি, মল্লিকা,আড়া ...
চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার ভোলাহাট আম ফাউন্ডেশনে উন্নত ও আধুনিক পদ্ধতি ব্যবহার করে আম বাজারজাতকরণের লক্ষ্যে আমচাষীদের নিয়ে পরীক্ষামূলক প্রদর্শনী ও সভা হয়েছে।  বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) সকাল থেকে শুরু হয়ে দিনব্যাপী চলা বিভিন্ন প্রদর্শনীতে এলাকার আমচাষী ও ব্যবসায়ীরা অংশ ...
বাংলাদেশে উৎপাদিত ফল ও সবজির রপ্তানির সম্ভাবনা অনেক। তবে সম্ভাবনার তুলতায় সফলতা যে খুব যে বেশি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। রপ্তানি সংশ্লিষ্ঠ ব্যাক্তিবর্গ অনিয়মতান্ত্রিকভাবে বিভিন্নভাবে তাদের প্রচেষ্ঠা অব্যহত রেখেছেন। কিন্তু এদের সুনির্দিষ্ট কোন কর্ম পরিকল্পনা নেই বললেই চলে। ...
মৌসুমি ফল দিয়ে কর্তা ব্যক্তিদের খুশি করে স্বার্থ উদ্ধারের পদ্ধতি অনেক দিনের। বর্তমানে এই খুশি বিষয়টি আদায় করতে নগদ অর্থ খরচ করতে হলেও ফল থেরাপি ধরে রেখেছে অনেকেই। এর একটি হল মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের জন্য নিয়মিত ...
ইসলামপুরের গাইবান্ধা ইউনিয়নের আগুনেরচরে একটি আম গাছের গোড়া থেকে গজিয়ে উঠেছে হাতসদৃশ মসজাতীয় উদ্ভিদ বা ছত্রাক। ওই ছত্রাককে অলৌকিক হাতের উত্থান এবং ওই হাত ভেজানো পানি খেলে যেকোন রোগ ভাল হয় বলে অপপ্রচার করছে স্থানীয় ভ- চক্র। আর ওই ভ-ামির ফাঁদে পা দিয়ে প্রতিদিন প্রতারিত হচ্ছেন ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২